সাভারে পৃথক স্থানে দুই তরুণী গণধর্ষণের শিকার, আটক ১

Comments · 773 Views

পৃথক ঘটনায় সাভারে দুই তরুণী গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এঘটনায় পুলিশ একজনকে আটক করেছে। সোমবার দিবাগত রাতে সাভার

পুলিশ জানায়, মিরপুর বড়বাজার এলাকার (২৩) এক নারীকে গত ১৭ সেপ্টেম্বর সাভারের ভাকুর্তার মুশরীখোলা এলাকায় নিজ বাড়িতে বিয়ের প্রভোলন দেখিয়ে ডেকে নেন মিরাজুল নামের এক ব্যক্তি। পরে ওই বাড়িতে ওই নারীকে বেধে রেখে ৮ জন মিলে গণধর্ষণ করে। ওই নারী আজ সন্ধ্যায় সাভার মডেল থানায় উপস্থিত হয়ে রুহুল আমিন নামের এক ব্যক্তিকে প্রধান আসামি করে ৮ জনের নাম উল্লেখ করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। মামলার পরে পুলিশ সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামি রুহুল আমিনকে (৪৫) আটক করে। পরে ওই নারীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টফ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করে। 

অন্যদিকে সাভারের কাউন্দিয়া ইউনিয়নের পশিচমপাড়া এলাকায় এক তুরুণী (১৮) গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। পুলিশ জানায়, গতকাল ওই সকালে ওই তুরণী রাজবাড়ী জেলার পাংশা থানা থেকে কাউন্দিয়ার পশিচমপাড়া এলাকায় মেহেদী হাসান নামের এক বন্ধুর ভাড়া বাড়িতে বেড়াতে আসে। পরে রাতে পশ্চিম পাড়া এলাকার একটি বাড়িতে ওই তরুণী ও তার বন্ধুকে বেধে রেখে রাতভর তাকে গণধর্ষণ করেন ওই এলাকার বখাটে যুবক মোহাম্মদ হোসেন ও মুন্না। পরে আজ সন্ধ্যায় ওই তরুণী সাভার মডেল থানায় উপস্থিত হয়ে মোহাম্মদ হোসেনকে প্রধান আসামি করে গণধর্ষণের মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ ওই তরুণীকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টফ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করে।

 

গণধর্ষণ মামলার আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে বলে জানিয়েছেন সাভার মডেল থানার ওসি অপারেশন জাকারিয়া হোসেন। 


Source: বিডি প্রতিদিন/হিমেল

Comments